আদিবাসী সম্প্রদায়ের আলচিকি স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

এইচ.ইউ.ফারুক,ডিএনএম, চাঁচল,২৬নভেম্বর:
আদিবাসী সম্প্রদায়ের আলচিকি স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এদিন অনুষ্ঠিত হল চাঁচল-২ব্লকের চোড়লমুনি হাই স্কুল মাঠে।ব্যবস্থাপনা করে আদিবাসী সমাজ শিক্ষন ও সাংস্কৃতিক সংস্থা।আদিবাসী সমাজ শিক্ষন ও সাংস্কৃতিক সংস্থার জেলা সভাপতি বিজয় কিস্কু জানান, প্রথাগত বিদ্যালয়গুলির সাথে তাল মিলিয়ে আলচিকি ভাষায় সব ধরনের শিক্ষা দেওয়া হয় এই বিদ্যালয়গুলিতে।
আলচিকি ভাষার বিদ্যালয়গুলির ক্রীড়া প্রতিযোগিতা সেই সঙ্গে আদিবাসী নৃত্যে মাতোয়ারা হল এলাকার অবালবৃদ্ধবনিতা।পন্ডিত রঘুনাথ মূর্মূর স্মৃতি বিজড়িত আলচিকি ভাষার বিদ্যালয়গুলি আদিবাসী সম্প্রদায়ের মধ্যে বিশেষ মর্যাদার অধিকারী।মোট আটটি বিদ্যালয়ের ক্ষুদে পড়ুয়ারা ৫৭ টি বিভিন্ন ধরনের ইভেন্টে এদিন অংশগ্রহন করেন। এদিন মহদিপুর, পাথরঘাটা, কাপাশিয়া, ডমরু,যুগিয়াপাড়া,চড়োলমুনি, কাশিমপুর ও দাররা এলাকার আটটি বিদ্যালয়ের আদিবাসী পড়ুয়ারা এদিনের ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায়  ক্ষুদে পড়ুয়াদের তিরন্দাজী সবার নজর কাড়ে। অমিত সোরেন,রোহিত ওঁরাও,উজ্বল মূর্মুরা তিরন্দাজীতে অংশ নিয়ে জানায়, তিরন্দাজী শুধু একটি খেলা নয়।এটি আদিবাসীদের সংস্কৃতির পরিচয় বহন করে।

ক্রীড়া প্রতিযোগিতার শেষেএক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন দল অংশগ্রহন করে উপস্থিত দর্শক ও ক্রীড়া প্রেমীদের মাতিয়ে তোলে। সন্ধ্যাবেলা আদিবাসী বহিরাগত শিল্পীদের সমন্বয়ে এক বিরাট বিচিত্রানুষ্ঠান হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন চাঁচল২ ব্লক তৃণমূল নেতা হবিবুর রহমান, প্রনব দাস, গৌরী ঘোষ, ইমদাদুল হক, সংখ্যালঘু নেতা মুশারফ হোসেন, রফিকুল হোসেন, আদিবাসী নেতা ঠাকুর সোরেন, ছানু হাঁসদা সহ বহু বিশিষ্ট জন। আদিবাসী ছাত্রছাত্রীদের ক্রীড়া প্রদর্শন উপস্থিত সকলের নজর কাড়ে।খেলাধুলার সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা দীক্ষায় আদিবাসী সমাজ ক্রমশই এগিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *