উত্তর প্রদেশে গরু পরিনত হচ্ছে চাষিদের শত্রুতে

উত্তর প্রদেশে গরু পরিনত হচ্ছে চাষিদের শত্রুতে

লখিমপুর, উত্তর প্রদেশ:- উত্তর প্রদেশে যোগী একদিকে গোমাতার নামে কসাইখানাই বন্ধ করেছে আর অন্যদিকে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে লখিমপুর এলাকার চাষিরা। এই এলাকায় গরু চাষিদের শত্রুতে পরিনত হচ্ছে, গ্রামের ক্ষেতগুলোতে ঢুকে বেশিরভাগ সময় চাষিদের ফসল নষ্ট করে দিচ্ছে।

গরুগুলো যখন তখন ক্ষেতে ঢুকে ধান, আখ ইত্যাদি ফসলের বিশাল ক্ষতি করছে।

মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলার সময় লোকজন গরু নিয়ে ভীষন অসস্তি প্রকাশ করে। তারা বলে এই গরুর জন্য গ্রামের চাষিরা ঘুমোতে পাচ্ছেনা, রাত্রে বসে বসে ক্ষেত জোগান দিতে হচ্ছে। জোগান দিতে দিতে যদি কোনো সময় একটু ঘুম চলে আসছে বা কোনো কারন বসত আধ এক ঘন্টার জন্য ক্ষেত থেকে বাড়ি যেতে হচ্ছে তো সেই সময়েই গরু ক্ষেতে ঢুকে কঠোর পরিশ্রমের ফসলগুলো নিমেষেই শেষ করে দিচ্ছে।

সেই গ্রামের লোকজনেরর মতে বারবার অভিযোগ করা সত্বেও প্রসাশন কোনো ব্যবস্থা নেইনি, তারা তারা বাধ্য হয়ে এলাকারর সমস্ত গরুকে লখিমপুরে স্কুলে আটকে রেখে বেড়া দিয়ে ঘিরে রেখেছে। স্কুলটিতে বর্তমানে গরুর সংখ্যা ১০০-১৫০।

স্কুলে বন্ধ রাখার জন্য মিডিয়ার লোক তাদের যখন জিজ্ঞেস করে – এভাবে গরু স্কুল চত্বরে রাখলে ছেলেমেয়েরা কোথায় পড়াশুনা করবে, তো চাষিরা উত্তর দেয় – বাড়িতে যদি খাবার না থাকে তো ছেলেরা স্কুল কিভাবে যাবে, গরুরা তাদের কষ্টের ফসলই তো নষ্ট করে দিচ্ছে।

তারা সরকারের কাছে দাবি করেছে গরুগুলো শীঘ্রই স্থানান্তর করার, চাই গরুগুলো বনে জঙ্গলে রেখে আসুক বা গোশালা তৈরী করুক বা অন্য কোথাও নিয়ে চলে যাক।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *